পশ্চিমবঙ্গের ট্রেনে কিশোরী গণধর্ষণ, প্রতিবাদের ঝড়

আদিল শাহ
2015.12.29
Share on WhatsApp
Share on WhatsApp
Ind-rape পশ্চিমবঙ্গে একটি চলন্ত ট্রেনে মঙ্গলবার তিন সেনা সদস্যের গ্যাং রেপ-এর খবরে নারি অধিকার কর্মিরা ফুঁসে উঠেছে।
অনলাইন

পশ্চিমবঙ্গে একটি চলন্ত ট্রেনে মঙ্গলবার তিন সেনা সদস্যের গ্যাং রেপ-এর খবরে নারি অধিকার কর্মিরা ফুঁসে উঠেছে।

‘এটা একটা জঘন্য ঘটনা’ বেনারকে জানালেন দিল্লি ভিত্তিক এনজিও দি সেন্টার ফর সোশাল রিসার্চের পরিচালক রঞ্জনা কুমারী।

পশ্চিমবঙ্গেও উঠেছে প্রতিবাদ।

কুমারী বলেন, ‘এই ঘটনা মোটেও গ্রহনযোগ্য নয়, সেনা সদস্যদের অবিলম্বে কোর্ট মার্শালে বিচার করতে হবে’।

মঙ্গলবার কর্মকর্তারা জানান, জড়িত ৩ সেনার মধ্যে একজনকে আটক করা হয়েছে, বাকি দুইজন পালিয়ে বেড়াচ্ছে।

পুলিশ জানায়, এই মেয়েটি কলকাতার হাওড়া স্টেশন থেকে সোমবার সকালে পাঞ্জাবের অমৃতসরে যাচ্ছিল। কলকাতায় সে থাকে, ট্রেনের একটি ভুল কামরায় ওঠার পর সে ধর্ষিত হয়। সেনারা সেখানে ছিল, জানালেন রেল পুলিশের কর্মকর্তা অরুন তেওয়ারি।

তিনি জানান, ‘যখন মেয়েটা বাথরুমে যায় তখন এই ঘটনা ঘটে’।

পরে তাকে ঝারখন্ড স্টেশনে উদ্ধার করা হয়, যখন একদল সমাজ কর্মি অচেতন হয়ে পড়া মেয়েটির খবর দেয় পুলিশকে।
মদনপুর পুলিশ কর্মকর্তা জানান, তাকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য নেয়া হয়েছে।

আটক সেনা সদস্য মাঞ্জরিশ ত্রিপাঠিকে মঙ্গলবার পশ্চিমবঙ্গের আদালতে তোলা হয়। আদালত ৭ দিনের জন্য তাকে পুলিশ রিমান্ডে দেয়।
তিয়ারি জানান, মেয়েটিকে ত্রিপাঠি জোর করে মদপান করায়।

কলকাতার গভর্নর হাউজের সামনে এই ঘটনার প্রতিবাদকারী বেশ কয়েকজনকে পুলিশ গ্রেপ্তার করে।

পাঞ্জাবের সেনাবাহিনীর ওয়েস্টার্ন কমান্ডের এক কর্মকর্তা বেনারকে জানান, ধর্ষণের ঘটনায় তদন্তের জন্য সেনাবাহিনীর পক্ষ থেকে পুলিশকে পূর্ন সহযোগিতা করা হচ্ছে। নাম প্রকাশ না করার শর্তে তিনি বলেন, ‘আমাদের পক্ষে যতটা সম্ভব ঘটনাটিকে আমরা তদন্ত করে দেখছি’।


দিনে ৯৩টি ধর্ষনের ঘটনা ঘটছে

ভারতে ধর্ষণ বিরোধী প্রবল প্রতিবাদ সত্তেও ধর্ষণের ঘটনা ঘটেই চলেছে। ট্রেনের ঘটনাটি শেষ ঘটনা নয়। মঙ্গলবার মহারাস্ট্রের ইনফয়েসের পুনা ক্যাম্পাসে এক মহিলাকে ধর্ষণের অভিযোগে ২ জনকে পুলিশ গ্রেপ্তার করেছে।

ন্যাশনাল ক্রাইম রেকর্ডস ব্যুরোর পরিসংখ্যান অনুসারে প্রকাশিত তথ্য অনুযায়ী ভারতে প্রতিদিন ৯৩ জন নারী ধর্ষণের শিকার হচ্ছেন।

‘ এটা নতুন কোনো ঘটনা নয়, আমরা দেখেছি সেনা সদস্যরা মনিপুরে ও কাশ্মিরে একই ঘটনা ঘটিয়ে চলেছে’, জানালেন পশ্চিমবঙ্গের নারী অধিকার কর্মি ও চলচিত্র নির্মাতা অনিন্দিতা সর্বধিকারী। তাঁর মতে এসব ঘটনা বন্ধ করতে হলে সবক্ষেত্রে নারীর প্রতিনিধিত্ব বাড়াতে হবে।

মন্তব্য করুন

নীচের ফর্মে আপনার মন্তব্য যোগ করে টেক্সট লিখুন। একজন মডারেটর মন্তব্য সমূহ এপ্রুভ করে থাকেন এবং সঠিক সংবাদর নীতিমালা অনুসারে এডিট করে থাকেন। সঙ্গে সঙ্গে মন্তব্য প্রকাশ হয় না, প্রকাশিত কোনো মতামতের জন্য সঠিক সংবাদ দায়ী নয়। অন্যের মতামতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল হোন এবং বিষয় বস্তুর প্রতি আবদ্ধ থাকুন।

পুর্ণাঙ্গ আকারে দেখুন